গরম পড়তেই মালবাজারে শুরু পানীয় জলের সমস্যা


নিজস্ব প্রতিবেদন: গত কয়েক বছর ধরেই পানীয় জলের সমস্যায় ব্য়তিব্য়স্ত মালবাজারের সাধারণ মানুষ।

মালবাজার (malbazar) ব্লকের বাগরাকোট পঞ্চায়েতের লিসরিভার চা-বাগানের (tea backyard) ১৩ নম্বর সেকশন এলাকায় জলের সঙ্কট অনেকদিনের। এ ব্যাপারে গ্রামের মানুষের বিভিন্ন সরকারি দপ্তরে ঘুরেও কোনও লাভ হয়নি। তাঁদের অভিযোগ, ভোটের আগে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা এসে বলেন, ভোট মিটলেই জলের ব্যবস্থা হবে। ভোট মেটে কিন্তু জলের ব্যবস্থা হয় না। আর এতেই ক্ষিপ্ত গ্রামের মানুষ।

আরও পড়ুন: Reside: কেন্দ্রীয় বাহিনীর RT-PCR Take a look at মাস্ট: Mamata

এলাকার বাসিন্দা অনিত বিশ্বকর্মাদের বক্তব্য, একটা সরু পাইপ দিয়ে সুতোর মতো জল আসে (water provide) গ্রামে। তা-ও অনিয়মিত। সেই জলের উপর নির্ভর করতে হয় গ্রামের সব মানুষকে। এই জল দিয়েই সারতে হয় স্নান, খাওয়া, জামা-কাপড় ধোওয়া প্রায় সব কাজই। আবার বেশি বৃষ্টি হলেই এই পাইপ জলের নীচে চলে যায়। তখনও সমস্যা। বহু দিন থেকেই তাই আমরা বিভিন্ন জায়গায় জলের সুব্যবস্থার জন্য আবেদন করে আসছি। কিন্তু এতকাল কিছুই হয়নি।

এই গ্রামেরই মহিলা সুষমা তামাং এবং প্রিয়াঙ্কা চৌধুরী বলেন, তিন বছর আগে গ্রামেই ডিপ টিউবওয়েলের জন্য বোরিং করা হয়েছিল। কিন্তু সেই টিউব ওয়েল এখনও চালু হয়নি। সেই কারণে এখানে জলসঙ্কট। আমাদের মাঝে-মধ্যে জল কিনেও খেতে হয়। আমাদের কথা কেউ ভাবে না।

বাগরাকোট (bagrakote) পঞ্চায়েতের উপপ্রধান সরীতা সাহী বলেন, বাগরাকোট পঞ্চায়েতের আওতায় ২৫টি গ্রাম। আমরা সব গ্রামেই জলের ব্যবস্থা করেছি। লিস রিভার চা-বাগানের জলের সমস্যা কথা আপনাদের মুখে শুনছি। কী কারণে ওখানে জলের সমস্যা হচ্ছে, তা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নিচ্ছি।

আরও পড়ুন: করোনার জন্য বন্ধ ব্যাঙ্ক, ওদলাবাড়িতে সমস্যায় গ্রাহকেরা



Supply hyperlink

Leave a Reply