রাজ্যে ১৮-৪৪ বছর বয়সীদের জন্য Vaccine এলে তবেই তা দেওয়া হবে, জানিয়ে দিল Nabanna


নিজস্ব প্রতিবেদন: রাজ্যে করোনা ভ্যাকসিনের সঙ্কট চরমে। এসএসকেএম থেকে মানিকতল ইএসআই, ক্যানিং থেকে বহরমপুর-সব জায়গায় একই ছবি।  ভ্যাকসিনের আকাল। ইতিমধ্যেই প্রথম ডোজ যারা নিয়েছেন তারা দ্বিতীয় ডোজের জন্য লাইন দিচ্ছেন ভোর থেকেই। তার উপরে ১ মে থেকে শুরু হবে ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সীদের ভ্যাকসিন দেওয়ার কর্মসূচি। এনিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিজ্ঞাপ্তি জারি করল নবান্ন।

আরও পড়ুন-হাসপাতালে মেলেনি বেড, আত্মঘাতী করোনা আক্রান্ত Ambulance চালক

শুক্রবার নবান্ন-র(Nabanna) তরফে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সীদের জন্য ভ্যাকসিন রাজ্যে এসে পৌঁছয়নি। ওই ভ্যাকসিন চলে এলে তা দেওয়া শুরু হবে। এনিয়ে যথা সময়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। অর্থাত্ ১ মে থেকে ১৮ বছরের বেশি বয়সীদের জন্য ভ্যাকসিন দেওয়ার যে কথা ছিল তা আপাতত অনিশ্চিত। সবটাই নির্ভর করছে ভ্যাকসিন(Covid Vaccine) পাওয়ার উপরে।

প্রসঙ্গত, আজ এই কথাটাই খুব বিনয়ের সঙ্গে জানিয়ে দিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল(Arvind Kejriwal)।  দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর আর্জি, আগামিকাল থেকে ভ্যাকসিনের জন্য লাইন দেবেন না। রাজ্য সরকারের হাতে ভ্যাকসিন নেই। তা এসে গেল জানিয়ে দেওয়া হবে। দুটি ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। তাদের প্রত্যেকের কাছ থেকে ৬৭ লাখ ভ্যাকসিন পাওয়ার কথা।

আরও পড়ুন-ল্যাবের সিলিন্ডারে করোনা রোগীদের চিকিৎসা, SFI-র প্রস্তাবে সায় JU উপাচার্যের  

এদিন নবান্নর তরফে বিজ্ঞাপ্তি আরও জানানো হয়েছে, স্বাস্থ্যকর্মী, ফ্রন্টলাইন কর্মী(Fronlline staff) এবং ৪৫ বছরের বেশি বয়সীদের সরকারি ব্যবস্থাপনায় টিকা দেওয়ার যে কাজ চলছে তা চলবে।  দ্বিতীয় ডোজের প্রাপকরা অগ্রাধিকার পাবেন। 

অন্যদিকে, যাঁরা বেসরকারি হাসপাতাল বা চিকিত্সা কেন্দ্র থেকে ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ পেয়েছেন তাঁরা সরকারি ভ্যাকসিন কেন্দ্র থেকে দ্বিতীয় ডোজ নিতে পারবেন। পাশাপাশি বেসরকারি হাসপাতালগুলিতে টিকা পরিষেবা চালু হবে সেখানে টিকা পৌঁছনোর পর।



Supply hyperlink

Leave a Reply